রাজ্যের প্রতিটি মহিলা যেন শান্তিতে বেঁচে থাকতে পারেন : মহিলা কমিশন

নিজস্ব সংবাদদাতা, আগরতলা : রাজ্যের প্রতিটি ঘরের মহিলা যেন শান্তিতে বেঁচে থাকতে পারেন। এটাই চায় রাজ্য মহিলা কমিশন। সেই রাস্তায় কাজ করছে রাজ্য মহিলা কমিশন। এই ক্ষেত্রে রাজ্যের মহিলারা কমিশনকে সহায়তা করছেন।

শনিবার রাজধানীর ঠাকুরপল্লী রোড এলাকায় এক বধূ নির্যাতন সংক্রান্ত মামলার তদন্ত করতে গিয়ে এই কথা বলেন রাজ্য মহিলা কমিশনের চেয়ারপার্সন বর্ণালী গোস্বামী। তিনি আশা ব্যক্ত করেন মহিলা কমিশন যে পথে এগিয়ে যাচ্ছে সেই পথ ধরেই রাজ্যের মহিলারা সুখে শান্তিতে আগামী দিনে বসবাস করতে পারবে।

এদিন মহিলা কমিশনের চেয়ারপার্সন জানান এই ঘটনার তদন্ত করতে গিয়ে নির্যাতিতার সাথে কথা বলেছেন। জানা গেছে বিয়ের পর থেকেই স্বামী সুভ্রজ্যোতি মজুমদার তাঁর স্ত্রীর উপর নির্যাতন চালাতো। কিছুটা বদমেজাজি ছিলেন সুভ্রজ্যোতি মজুমদার। তাঁর ক্ষমতার জোরে তিনি এই নির্যাতন চালাতেন স্ত্রীর উপর। কিন্তু তিনি জানেন না রাজ্যের মহিলারা জেগে উঠেছে ।

তাদের ঘরে বন্দি রেখে দিনের পর দিন অত্যাচার করার দিন শেষ। এখন এই বিষয়টি বরদাস্ত করা হবে না। রাজ্য মহিলা কমিশন রাজনীতির উর্ধে উঠে কাজ করছে। কোন দলের ব্যক্তি বা বিরোধী দল এটা দেখার বিষয় নয় রাজ্য মহিলা কমিশনের। রাজ্যের মহিলারা সুরক্ষিত থাকবে এটাই সব চাইতে বড় কথা বলে জানান মহিলা কমিশনের চেয়ারপার্সন বর্ণালী গোস্বামী। বর্তমানে অভিযুক্ত স্বামী সুভ্রজ্যোতি মজুমদার  পুলিশি হেপাজতে রয়েছে বলে জানান তিনি।