রামপুরহাটে অস্ত্রসহ আটক তিন বিজেপি নেতা পুলিশি হেফাজত

নিজস্ব সংবাদদাতা : অস্ত্রসহ আটক তিন বিজেপি নেতাকে সাতদিনের পুলিশ হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

আটককৃতরা হলেন, সোমনাথ ঘোষ, কার্তিক মণ্ডল ও অমিত প্রামাণিক। সোমনাথ বিজেপির কিসান মোর্চার জেলা সভাপতি। বাকিরা একই সংগঠনের কর্মকর্তা।

গত বৃহস্পতিবার বিকেলে বিজেপির জেলা সভাপতি শ্যামাপদ মণ্ডলের ডাকে একটি আলোচনায় রামপুরহাট কামারপট্টিতে দলীয় কার্যালয়ে যায় সোমনাথরা। সেখানে জেলা সভাপতি এবং অন্যান্য নেতাদের সঙ্গে বাকবিতণ্ডা হয়। এরপর জেলা সভাপতির সঙ্গে বৈঠক সেরে বাড়ি ফেরার সময় রামপুরহাটের ডাক্তারপাড়ায় এলাকার বাসিন্দাদের সঙ্গে বচসায় জড়ান সোমনাথরা। তারাই রামপুরহাট থানায় খবর দেন। এরপর পুলিশ এসে তাদের আগ্নেয়াস্ত্র-সহ আটক করে। দীর্ঘক্ষণ জিজ্ঞাসাবাদের পর রাতের দিকে তাদের গ্রেফতার করে রামপুরহাট থানার পুলিশ।

এই গ্রেফতারের পিছনে দলের জেলা সভাপতির হাত রয়েছে বলে দাবি করেছেন ধৃত সোমনাথ। ধৃতদের কাছ থেকে ইতালির তৈরি নাইন এমএম পিস্তল ও এক রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করা হয়েছে। আদালতে তোলার আগে সাংবাদিকদের সামনে সোমনাথ বলেন, ‘জেলা সভাপতি শ্যামাপদ মণ্ডল এই জেলায় গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব বন্ধ করতে অক্ষম। এই গ্রেফতারের পিছনে তাঁরই ষড়যন্ত্র রয়েছে। শ্যামাপদ মণ্ডলের জেলে থাকা উচিত ছিল।’ ধৃতদের দাবি, তাদের ফাঁসানো হয়েছে। তাদের কাছে আগেয়াস্ত্র ছিল না।