করোনা রোগের ভুয়া ওষুধ বিক্রি : কবিরাজকে কারাদণ্ড

শরীয়তপুর সংবাদদাতা : ঔষধ খেলে করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে  এমন প্রচারনা চালিয়ে শরীয়তপুর সদরের মনোহর বাজার বাস ষ্টান্ডে বসে ঔষধ বিক্রি করছিলেন আলতাফ ফকির (৫৫) নামে এক ব্যক্তি।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তাকে আটক করেন শরীয়তপুর সদরের আংগারিয়া পুলিশ ফাড়ির পরিদর্শক মিন্টু মন্ডল। পরে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মাহাবুর রহমান শেখ ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে তাকে এক মাসের কারাদন্ড দিয়েছেন। পুলিশ রাত আটটার দিকে তাকে শরীয়তপুর জেলা কারাগারে পাঠিয়েছে।

আংগারিয়া পুলিশ ফাড়ির পরিদর্শক মিন্টু মন্ডল জানান,সদর উপজেলার চরপাতাং এলাকার বাসিন্দা আলতাফ ফকির। শরীয়তপুর-চাঁদপুর সড়কের মনোহর বাজার বাস ষ্টান্ডের ফুটপাতে বসে বিভিন্ন গাছপালার শিকর বিক্রি করত। সম্প্রতি তিনি সেখানে প্যাট্রোল পাম্পের সামনে একটি দোকান ভাড়া নিয়ে ওই ব্যবসা পরিসর বাড়ান।

গত তিন-চার দিন যাবৎ বিভিন্ন গাছের পাতার রসের সাথে ব্লিসিনপাউডার মিশিয়ে করোনা ভাইরাস নিরাময়ের ঔষধ বলে বিক্রি করতে থাকেন। এমন অভিযোগ পাওয়ার পেক্ষিতে তদন্ত করে ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায়। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তাকে মনোহর বাজার এলাকা থেকে আটক করা হয়। পরে ভ্রাম্যমান আদালত তাকে এক মাসের কারাদন্ড দিয়েছে।